মাদক, জুয়ার ছোবলে নবীগঞ্জের দিনারপুরের যুব সমাজ ধ্বংসের মুখে

নবীগঞ্জ থেকে সংবাদদাতা :
নবীগেঞ্জর ঐতিহ্যবাহী পাহাড়ি অঞ্চল দিনারপুর পরগণায় মাদকের ছড়াছড়ি চরম আকারে বৃদ্ধি পেয়েছে তার সাথে ফিছিয়ে নেই জুয়া খেলা। মাদক, জুয়ার ছোঁয়ায় তরুণ প্রজন্ম ধ্বংসের মুখে। একের পর এক পুলিশের লোক দেখানো অভিযানে মাদক সেবী, মাদক ব্যবসায়ী, জুয়াড়ী গ্রেফতার হলে ও মূল হুতারা এখনও ধরা ছোঁয়ার বাহিরে রয়ে গেছে তার কারণেই থেমে নেই মাদক সেবনও জুয়া খেলা। দীর্ঘ অনুসন্ধানে উঠে এসেছে বিভিন্ন এলাকার প্রভাবশালী ব্যক্তিগণ এইসব মাদক, জুয়ার ব্যবসার সাথে জড়িত। এসব অসাধু ব্যক্তির কারণে মাদক সেবনের দিকে ঝুঁকে পড়ছে বর্তমান প্রজন্মের যুব সমাজ থেকে শুরু করে স্কুল, কলেজের শিক্ষার্থী। এসব যেন দেখেও না দেখার বান করা অভ্যাসে পরিণত হয়েছে উপজেলা প্রশাসনের। উপজেলার গ্রামগঞ্জের বাজারে বিকাল নেমে এলেই ছোট ছোট দোকানে শুরু হয় জুয়ার খেলার আসর এলাকার মুরব্বি থেকে শুরু করে উঠতি বয়সের  যুবকদের উক্ত খেলায় দেখা যায়। এসব বন্ধের জন্য একাধিক বার প্রশাসন উদ্যোগ নিলে ও এখন পর্যন্ত নবীগঞ্জ উপজেলাকে মাদক জুয়াড়ি মুক্ত করতে সক্ষম হয়নি। জানা যায়, মাদকের সহজলভ্যতায় এলাকার স্কুল-কলেজে পড়–য়া ছাত্র ও যুবসমাজ মাদক সেবনে আসক্ত হচ্ছে। ফলে বিভিন্ন অপরাধমূলক কাজে জড়িয়ে পড়ছে। দিনারপুর এলাকায় বৃদ্ধি পেয়েছে চুরি, সহ নানা অপরাধমূলক কর্মকান্ড। যার ফলে এলাকার সুখ-শান্তি বিনষ্ট হচ্ছে। দিনে রাতে বিভিন্ন এলাকায় চলছে মাদক সেবন ও জুয়া খেলা। অভিভাবকরা তাদের সন্তানদের নিয়ে চিন্তিত এবং আতংকের মধ্যে রয়েছেন। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় উপজেলার পাহাড়ি অঞ্চল হিসেবে খ্যাত দিনারপুর পরগণার দেবপাড়া ইউনিয়নের সদরঘাট নতুন বাজার, দেবপাড়া বাজারের অলিগলি, গজনাইপুর ইউনিয়নের, লোগাঁও, বনগাঁও, পানিউমদা ইউনিয়নের পূর্বপাড়া, বরকান্দি, বটসর, পানিউমদা বাজার নিকটবর্তী ব্রীজের পশ্চিম দিক উল্লেখিত সব জায়গায় বিকেল / সন্ধ্যা নেমে  আসার পর পর শুরু হয় জুয়া খেলা রাতভর চলে খেলা। দিনের আলোতে কিভাবে প্রশাসনকে তোয়াক্কা না জুয়া খেলা সংগঠিত হয় এনিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রশাসনের চরম সমালোচনা করছেন ব্যবহারকারীরা।