পুরাতন সংবাদ: March 9th, 2017

কানাইঘাটে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে ৫টি প্রতিষ্ঠানকে ৮ হাজার টাকা জরিমানা

কানাইঘাট থেকে সংবাদাতা :
কানাইঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ১ম শ্রেণীর ম্যাজিষ্ট্রেট তাহসিনা বেগম গত বুধবার বিকেল ৪টায়

Exif_JPEG_420

Exif_JPEG_420

কানাইঘাট চতুল বাজারে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে অপরিচ্ছন্ন বাসী খাবার, খোলা ভেজাল মসলা এবং বিএসটিআই’র লেভেল অবৈধ ভাবে ব্যবহার করার বিস্তারিত

কানাইঘাটে পল্লীবিদ্যুতের ট্রান্সফরমার বিস্ফোরিত হয়ে ৮টি বসত ঘর পুড়ে ছাই

কানাইঘাট থেকে সংবাদাতা :
গত বুধবার বাদ মাগরিব কানাইঘাট ৭নং দক্ষিণ বানীগ্রাম ইউপির গড়াই গ্রামের আইয়ুব আলীর বাড়ীতে Fire Picপল্লীবিদ্যুতের ট্রান্সফরমার বিস্ফোরিত হয়ে ৮টি পাক ও আধা-কাঁচা বসত ঘর সম্পূর্ণ ভাবে ভস্মীভূত হয়েছে। স্থানীয় এলাকাবাসী জানান, গত বুধবার সন্ধ্যার দিকে বিস্তারিত

অগ্নি ঝরা মার্চ

জেড.এম. শামসুল :
আজ ১০ মার্চ। ১৯৭১ সালের এই দিনে গণহত্যার মুখে পড়ে বাঙালি জাতি। পাকিস্তানী বাহিনী বাঙালি untitled-22_23530জাতির উপর ঝাঁপিয়ে পড়তে থাকে। বিস্তারিত

হতাশা নয়, মহাক্ষমাশীল আল্লাহর প্রতি ভরসা রাখুন

মাওলানা জাফর আহমাদ

আল গাফফার- অতিশয় ক্ষমাশীল, ক্ষমাকারী। আল গাফুর- মহাক্ষমাশীল। শব্দ দু’টির মূল একই। গাফফার শব্দটি আরবি ভাষায় আধিক্য বোধক শব্দ।
আরবি সাহিত্যে এমন শব্দের বহুল ব্যবহার রয়েছে। যেমন আল্লাহতায়ালা কোরআনে কারিমে ইরশাদ করেন, ‘অতপর আমি (নুহ) তাদেরকে উচ্চকণ্ঠে আহ্বান জানিয়েছি। তারপর প্রকাশ্যে তাদের কাছে তাবলিগ করেছি এবং গোপনে চুপে চুপে বুঝিয়েছি। আমি বলেছি তোমরা নিজেদের প্রতিপালকের কাছে ক্ষমা চাও। নিঃসন্দেহে তিনি গাফফার বা অতিশয় ক্ষমাশীল।’ –সূরা নুহ: ৯-১০
আল্লাহতায়ালা যে ক্ষমাশীল ও করুণাময় এমন কথা কোরআনে কারিমের অনেক আয়াতে নানাভাবে নানা প্রসঙ্গে বলা হয়েছে। ওইসব স্থানে বলা হয়েছে, আল্লাহতায়ালা অতিশয় ক্ষমাশীল ও মহা ক্ষমাকারী। বান্দা বার বার ভুল করে আল্লাহর দিকে ফিরে এসে ক্ষমা প্রার্থনা করলে, আল্লাহতায়ালা মাফ করে দেন। কারণ আল্লাহতায়ালা বড়ই ক্ষমাশীল ও করুণাময়। এ প্রসঙ্গে কোরআনে কারিমে ইরশাদ হয়েছে, ‘হে নবী লোকদের বলে দাও, যদি তোমরা আল্লাহকে ভালোবাসো, তাহলে আমার অনুসরণ করো, আল্লাহ তোমাদের ভালোবাসবেন এবং তোমাদের গোনাহ মাফ করে দেবেন। তিনি বড়ই ক্ষমাশীল ও করুণাময়।’ –সূরা আলে ইমরান: ৩১
অর্থাৎ যদি তারা আল্লাহর রাসূলের কর্মনীতিকে ভালোবেসে তা গ্রহণ করে তবে তাদের সব গোনাহ মাফ করে দেবেন। কারণ আল্লাহতায়ালা বড়ই ক্ষমাশীল ও করুণাময়। আল্লাহ এমনই করুণাময় গাফফার যে, চরম অপরাধের পর ফিরে এলে তিনি কাউকে ফিরিয়ে দেন না।
যেমন আল্লাহতায়ালা বলেন, ‘ঈমানের নিয়ামত একবার লাভ করার পর পুনরায় যারা কুফরির পথ অবলম্বন করেছে, তাদের আল্লাহ হেদায়েত দান করবেন- এটা কেমন করে সম্ভব হতে পারে? অথচ তারা নিজেরা সাক্ষ্য দিয়েছে যে, রাসূল সত্যের ওপর প্রতিষ্ঠিত এবং তার কাছে উজ্জ্বল নিদর্শন এসেছে। আল্লাহ জালেমদের হেদায়েত দান করেন না। তাদের ওপর আল্লাহ, ফেরেশতা ও সব মানুষের অভিশাপ, এটিই হচ্ছে তাদের জুলুমের সঠিক প্রতিদান। এই অবস্থায় তারা চিরদিন থাকবে। তাদের শাস্তি লঘু করা হবে না এবং তাদের কোনো বিরামও দেওয়া হবে না। তবে যারা তওবা করে নিজেদের কর্মনীতির সংশোধন করে নেয় তারা এর হাত থেকে রেহাই পাবে। আল্লাহ ক্ষমাশীল ও করুণাময়। কিন্তু যারা ঈমান আনার পর আবার কুফরি অবলম্বন করে তার নিজেদের কুফরির মধ্যে এগিয়ে যেতে থাকে, তাদের তওবা কবুল হবে না। এ ধরনের লোকেরা পথভ্রষ্ট।’ -সূরা আলে ইমরান: ৮৬-৯০
কোরআনে কারিমের অন্যত্র আল্লাহতায়ালা আরও বলেন, ‘হা-মীম এ কিতাব আল্লাহর পক্ষ থেকে নাজিলকৃত যিনি মহাপরাক্রমশালী, সবকিছু সম্পর্কে অতিশয় জ্ঞাত, গোনাহ মাফকারী, তওবা কবুলকারী, কঠোর শাস্তিদাতা এবং অত্যন্ত দয়ালু। তিনি ছাড়া আর কোনো ইলাহ নেই। সবাইকে তার দিকে ফিরে যেতে হবে।’ -সূরা মুমিন: ১-২
এখানে লক্ষণীয় যে, আয়াতে ক্রমানুসারে আল্লাহতায়ালার কতগুলো গুণাবলি উল্লেখ করা হয়েছে। প্রথম দু’টি গুণের পর ‘আল্লাহ গোনাহ মাফকারী ও তওবা কবুলকারী’ গুণটি বর্ণনা করার উদ্দেশ্য হচ্ছে- যারা এখন পর্যন্ত বিদ্রোহ করে চলেছে তারা যেন নিরাশ না হয় বরং একথা ভেবে নিজেদের আচরণ পুনর্বিবেচনা করে যে, এখনও যদি তারা এ আচরণ থেকে বিরত হয় তাহলে আল্লাহর রহমত লাভ করতে পারে।
এ প্রসঙ্গে আল্লাহতায়ালা বলেন, ‘সাচ্চা ঈমানদার তো তারাই আল্লাহকে স্মরণ করা হলে যাদের অন্তর কেঁপে ওঠে। আর আল্লাহর আয়াত যখন তাদের সামনে পড়া হয়, তাদের ঈমান বেড়ে যায় এবং তারা নিজেদের রবের ওপর ভরসা করে। তারা নামাজ কায়েম করে এবং যা কিছু আমি তাদের দিয়েছি তা থেকে খরচ করে। এ ধরনের লোকেরাই প্রকৃত মুমিন। তাদের জন্য তাদের রবের কাছে রয়েছে বিরাট মর্যাদা, ক্ষমা ও উত্তম রিজিক।’ -সূরা আনফাল: ২-৪
আল্লাহতায়ালা অতিশয় ক্ষমাশীল, মহাক্ষমাশীল। বান্দা জেনে অথবা না জেনে যত বড় অপরাধই করুক না কেন আল্লাহ গাফুরুর রাহিমের কাছে ফিরে এলে তিনি ক্ষমা করে দেন। তিনি বান্দাদের ক্ষমাশীল দৃষ্টিতে দেখেন। সুতরাং কোনো অবস্থাতেই হতাশায় নিমজ্জিত নয়, সর্বাবস্থায় ভরসা রাখতে হবে আল্লাহ গাফুরুর রাহিমের ওপর। তিনিই আমাদের শেষ আশ্রয়, তার দরবারই আমাদের চূড়ান্ত ঠিকানা।

লভ্যাংশের শতকরা ৫ ভাগ দাবিতে শেভরন বাংলাদেশের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মানববন্ধন

নবীগঞ্জ থেকে সংবাদদাতা :
হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে বিবিয়ানা গ্যাস সরবরাহকারী শেভরনের বিক্রয়ের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। এমতাবস্থায় pic bibiyana 2নিয়মিত কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের মধ্যে উৎকণ্ঠা বিরাজ করছে। শেভরনে কর্মরত এমপ্লয়ীজ ইউনিয়ন এর উদ্যোগে  গতকাল বুধবার দুপুরে বিবিয়ানা গ্যাস ফিল্ডের বিস্তারিত

নানা কর্মসূচির মধ্যদিয়ে আন্তর্জাতিক নারী দিবস পালিত ॥ নারীর সম্মান-মর্যাদা ও অধিকার রক্ষায় কাজ করার আহবান

পূর্ণিমা ফাউন্ডেশন : “নারী পুরুষ সমতায় উন্নয়নের যাত্রা, বদলে যাবে বিশ্ব, কর্মে নতুন মাত্রা” এই 02শ্লোগানকে সামনে রেখে আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে লাভ জিহাদের মাধ্যমে ধর্মীয় সংখ্যালঘু নারী ও শিশু অপহরণ হত্যা, ধর্ষণ ও ধর্মান্তরিত করণের প্রতিবাদে ৮ মার্চ বিস্তারিত

বিনা অপরাধে আটক হলে ক্ষতিপূরণ চাওয়া যাবে – প্রধানমন্ত্রী

কাজিরবাজার ডেস্ক :
জাতীয় সংসদে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, যারা বিনা অপরাধে আটক রয়েছেন, তাঁরা সংশ্লিষ্ট আটককারী 15_FNS_N_30-10-13কর্তৃপক্ষের কাছে ক্ষতিপূরণ চাইতে পারেন। কেউ চাইলে রাষ্ট্রের কাছেও ক্ষতিপূরণ চাইতে পারেন। সেই বিধানও রয়েছে। বিস্তারিত

আলোচিত খাদিজা হত্যাচেষ্টা মামলায় বদরুলের যাবজ্জীবন

সিন্টু রঞ্জন চন্দ :
বহুল আলোচিত কলেজ ছাত্রী খাদিজা আক্তার নার্গিস হত্যাচেষ্টা মামলায় আসামী বদরুল আলমকে (২৩) sylhet photo 08.03.17 (4)যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত। রায়ের পাশাপাশি তাকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ২ মাসের বিনাশ্রমে কারাদন্ডে দন্ডিত করা হয়। গতকাল বিস্তারিত

শহরতলীর কালীরগাঁওয়ে গণপিটুনিতে ডাকাত নিহত

স্টাফ রিপোর্টার
শহরতলীর কালীরগাঁও (সিরাজপুর) গ্রামে ডাকাতি শেষে পলায়নকালে গণপিটুনিতে কালা মিয়া (৪০) নামের এক ডাকাত নিহত হয়েছে। নিহত ডাকাত কালা মিয়া কানাইঘাটের ডাওয়াদারি গ্রামের (পূর্ব তালবাড়ী) মৃত আব্দুর রহমানের ছেলে। বিস্তারিত

ঢাকা থেকে বিমান নিয়ে সিলেট ওসমানী বিমানবন্দরে এলেন ৮ নারী

স্টাফ রিপোর্টার :
আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ঢাকা-সিলেট রুটে যাত্রীদের নিয়ে গতকাল বুধবার আকাশে উড়ে একটি বিশেষ ফ্লাইট। বিমান বাংলাদেশের পরিচালনায় বিশেষ এই ফ্লাইটে পাইলট, ক্রু সবাই ছিলেন নারী। বিস্তারিত